1. [email protected] : admi2017 :
  2. [email protected] : Daily Khabor : Daily Khabor
  3. [email protected] : shaker :
  4. [email protected] : shamim :
বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ১০:১০ পূর্বাহ্ন

আজ থেকে টিসিবির ৩০ টাকার পেঁয়াজ বিক্রি শুরু

ডেইলি খবর নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় রবিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৬৪ বার পড়া হয়েছে

পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণে আজ রবিবার থেকে দেশজুড়ে ৩০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু করছে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি), যা খুচরা বাজারে বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৭০ টাকায়। ঢাকাসহ সারা দেশের ২৭৫টি ভ্রাম্যমাণ ট্রাকের মাধ্যমে পেঁয়াজের সঙ্গে নিয়মিত তিন পণ্য তেল, চিনি ও ডালও বিক্রি করবে টিসিবি। একজন ভোক্তা সর্বোচ্চ দুই কেজি পেঁয়াজ কিনতে পারবে। এ ছাড়া চিনি ও মসুর ডাল বিক্রি হবে ৫০ টাকা কেজি দরে। এই মানের চিনি খুচরা বাজারে ৬৫ থেকে ৭০ টাকা এবং মসুর ডাল ৯০ থেকে ১২০ টাকা কেজি। একজন ভোক্তা সর্বোচ্চ দুই কেজি করে কিনতে পারবে। সয়াবিন তেল প্রতি লিটার ৮০ টাকা দরে (দুই ও পাঁচ লিটারের বোতল) কিনতে পারবে। বাজারে এ মানের সয়াবিন তেল এখন ১০৫ থেকে ১১০ টাকা লিটার।

বন্যার কারণে পেঁয়াজের দাম অস্বাভাবিক বেড়ে যাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে আমদানি করে টিসিবির মাধ্যমে বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ভারতের পাশাপাশি মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আমদানি বাড়ানো এবং তুরস্ক থেকে নতুন করে আমদানির জন্য টেন্ডার দিয়েছে মন্ত্রণালয়।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনিশ বলেছিলেন, ‘পেঁয়াজের দাম বাজারে একটু বেড়েছে। বন্যার কারণে সরবরাহে সমস্যা হয়েছে। আমরা দাম কমাতে চেষ্টা করছি।’

টিসিবি এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, করোনা ও বন্যা-পরবর্তী পরিস্থিতিতে টিসিবি ২৭৫টি ভ্রাম্যমাণ ট্রাকে পণ্য বিক্রি করবে। এর মধ্যে ঢাকায় ৪০টি, চট্টগ্রামে ১০টি, রংপুরে সাতটি, ময়মনসিংহে পাঁচটি, রাজশাহীতে পাঁচটি, খুলনায় পাঁচটি, বরিশালে পাঁচটি, সিলেটে পাঁচটি, বগুড়ায় পাঁচটি, কুমিল্লায় পাঁচটি, ঝিনাইদহ ও মাদারীপুরে তিনটি করে এবং অবশিষ্ট জেলা ও উপজেলায় প্রতিটিতে দুটি করে ভ্রাম্যমাণ ট্রাকে করে পণ্য বিক্রি করা হবে। এ ছাড়া টিসিবির আঞ্চলিক কার্যালয়ের আওতাভুক্ত উপজেলায় অতিরিক্ত পাঁচটি ট্রাকে এবং বন্যাকবলিত জেলা ও উপজেলায় পরিস্থিতি বিবেচনায় ১৩টি ট্রাকে পণ্য বিক্রি করবে। আর এই বিক্রি কার্যক্রম শুক্র ও শনিবার বাদে ১ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে।

প্রতিটি ট্রাকে চিনি ৫০০-৭০০ কেজি, মসুর ডাল ৪০০-৬০০ কেজি, সয়াবিন তেল ৭০০ থেকে এক হাজার লিটার এবং পেঁয়াজ ২০০ থেকে সর্বোচ্চ ৪০০ কেজি বরাদ্দ থাকবে।

উল্লেখ্য, ভারতের বাজারে পেঁয়াজের দাম কিছুটা বেড়ে যাওয়ায় দেশের বাজারে কিছুটা অস্থিরতা তৈরি হয়। এতে দেশি পেঁয়াজের দামও হঠাৎ বাড়িয়ে দেন ব্যবসায়ীরা। ১০ দিন আগেও দেশি ভালো মানের পেঁয়াজ মিলত ৪৫ টাকা কেজি দরে আর আমদানি করা পেঁয়াজের দাম ছিল ৩০ টাকা কেজি।

বিজ্ঞাপন

এ জাতীয় আরো খবর

বিজ্ঞাপন