1. [email protected] : admi2017 :
  2. [email protected] : Daily Khabor : Daily Khabor
  3. [email protected] : shaker :
  4. [email protected] : shamim :
শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ১১:০৯ পূর্বাহ্ন

কাতারে বাংলাদেশসহ ৬ দেশের যাত্রীদের জন্য বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিন

ডেইলি খবর নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২৭ এপ্রিল, ২০২১
  • ১০ বার পড়া হয়েছে

কাতারে বাংলাদেশসহ ৬ দেশের যাত্রীদের জন্য বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিন

বাংলাদেশসহ ৬টি দেশের অভিবাসীদের জন্য নতুন করে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে কাতার। এসব দেশ হলো বাংলাদেশ, ভারত, নেপাল, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা এবং ফিলিপাইন। এসব দেশ থেকে কাতারে যাওয়া কোনো ব্যক্তিই হোটেল কোয়ারেন্টিন থেকে রক্ষা পাবেন না। অর্থাৎ কাতার গেলে তাদেরকে অবশ্যই হোটেলে কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।

এসব দেশের যাত্রীদের ফ্লাইট শুরুর ঠিক ৪৮ ঘণ্টা আগের করোনার পিসিআর টেস্ট রিপোর্ট থাকতে হবে। কাতারে পৌঁছার পর অবশ্যই সব যাত্রীকে কোয়ারেন্টিন সেন্টারে কমপক্ষে ১০ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। অথবা মেকাইনস ফ্যাসিলিটিতে কোয়ারেন্টিনে গেলে কমপক্ষে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।

এক্ষেত্রে এই ৬টি দেশের কোনো নাগরিক যদি হোম কোয়ারেন্টিনের দাবি তোলেন তাহলে তা গ্রহণযোগ্য হবে না।

গত ৫ মাসের মধ্যে যদি কেউ করোনার টিকা নিয়ে থাকেন অথবা সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়ে থাকেন তাহলে তাকেও এ বিধিনিষেধের আওতায় আসতে হবে। এই ঘোষণা দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে এসব বিধিনিষেধ কার্যকর হবে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন গালফ টাইমস।

কাতারের জনস্বাস্থ্য বিষয়ক মন্ত্রণালয় এ ঘোষণা দিয়েছে বলে খবরে বলা হয়েছে। মন্ত্রণালয় থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে সোমবার বলা হয়েছে, ভারতে করোনা ভাইরাসের নতুন স্ট্রেইন বা ভ্যারিয়েন্সের প্রাদুর্ভাবের কারণে এবং কাতারের জনস্বাস্থ্য সুরক্ষিত রাখার কারণে এ নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে বাধ্যতামূলক হোটেল কোয়ারেন্টিনের ক্ষেত্রে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

এসব দেশ থেকে যেসব যাত্রী কাতারে যাবেন তাদের জন্য নিম্নোক্ত বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে-

১. ফ্লাইট শুরুর ৪৮ ঘন্টা আগে স্থানীয় স্বাস্থ্য বিষয়ক কর্তৃপক্ষ অনুমোদিত পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে করোনা ভাইরাসের পিসিআর টেস্ট করা বাধ্যতামূলক। বৈধভাবে নেগেটিভ পিসিআর সনদ ছাড়া কেউই কাতারগামী ফ্লাইটে উঠতে পারবেন না।

২. এসব দেশের যাত্রীদেরকে অবশ্যই একটি ‘ডেডিকেটেড’ কোয়ারেন্টিন ফ্যাসিলিটিতে ১০ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। অথবা মেকাইনস ফ্যাসিলিটিতে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।

৩. এসব দেশ থেকে যাওয়া কোনো ব্যক্তি যদি হোম কোয়ারেন্টিনের দাবি করেন তাহলে তা গ্রহণযোগ্য হবে না। গত ৬ মাসের মধ্যে কেউ যদি করোনার টিকা নিয়ে থাকেন অথবা করোনা সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়ে থাকেন তাহলে তাদের ক্ষেত্রেও এ নির্দেশ একই হবে।

৪. কাতার পৌঁছার এক দিনের মধ্যে কোয়ারেন্টিন সেন্টারে সবাইকে নতুন করে করোনার পিসিআর টেস্ট করাতে হবে। কোয়ারেন্টিন সেন্টারে থাকাকালীন বার বার পরীক্ষা করা হবে এবং সেখান থেকে মুক্তি পাওয়ার আগে অবশ্যই নতুন করে পরীক্ষা করা হবে।

৫. যেসব যাত্রী এসব দেশ থেকে কাতারকে ট্রানজিট হিসেবে ব্যবহার করবেন তাদের জন্য (১) নম্বর শর্তে উল্লেখিত বিধানের মতো সফরের আগে পিসিআর টেস্ট করানো বাধ্যতামূলক। তাদের যাত্রাপথে আবার পিসিআর পরীক্ষা করাতে হবে। এটা তারা ৩০০ কাতারি রিয়ালের বিনিময়ে হামাদ ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে করাতে পারবেন।

এতে আরো বলা হয়, কাতারের জনস্বাস্থ্য বিষয়ক মন্ত্রণালয় পরিস্থিতির ওপর ঘনিষ্ঠ নজর রাখছে। একই সঙ্গে কাতার এবং বিশ্বজুড়ে জনস্বাস্থ্য বিষয়ক সূচক অনুযায়ী তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করছে। এর মধ্য দিয়ে প্রতিটি মানুষের স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা সুরক্ষিত রাখতে আগেভাগে পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।

উল্লেখ্য, নতুন করোনার স্ট্রেইন বা ভ্যারিয়েন্ট, ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টসহ, খুবই সংক্রামক। এটা কি গতিতে বিস্তার লাভ করে তা নির্ধারণের জন্য অধিক পরিমাণে গবেষণা চলছে।

এ জাতীয় আরো খবর