1. [email protected] : admi2017 :
  2. [email protected] : Daily Khabor : Daily Khabor
  3. [email protected] : rubel :
  4. [email protected] : shaker :
  5. [email protected] : shamim :
শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৭:২৯ পূর্বাহ্ন

চুলের সুন্নতি কাটিং না দিলে আইনানুগ ব্যবস্থা!

ডেইলি খবর নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২১
  • ১০১ বার পড়া হয়েছে

চুল কাটার ক্ষেত্রে সুন্নতি কাটিং, ডিফেন্স বা আর্মি কাটিং ব্যতীত অন্য কোনো কাটিং দেওয়া হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার হুমকি দিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে।

সেলুন মালিক এবং কারিগরদের উদ্দেশে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের জারি করা এমন নোটিশ নিয়ে তোলাপাড় শুরু হয়েছে। গত সোমবার ভোলার চরফ্যাশনের ১৪নং জাহানপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন হাওলাদার স্বাক্ষরিত এ নোটিশ জাহানপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন বাজারের সেলুন দোকানে টানানো হয়েছে।

বিতর্কিত ওই নোটিশ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোচনার ঝড় উঠলে চেয়ারম্যান নোটিশের জন্য দুঃখ প্রকাশ করে বুধবার বিকালে নোটিশটি প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে ফেসবুকে নিজ আইডি থেকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন। যদিও এ প্রতিনিধির কাছে নোটিশ জারির কথা অস্বীকার করে বলেছেন, কে বা কারা তার সিল স্বাক্ষর জাল করে বাজারের দোকানে দোকানে বিতর্কিত ওই নোটিশ টানিয়েছেন তা তিনি জানেন না।

স্থানীয়রা জানান, গত সোমবার জাহানপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন বাজারের সেলুন দোকানে চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন হাওলাদার স্বাক্ষরিত নোটিশ টানিয়ে দেওয়া হয়। জরুরি বিজ্ঞপ্তি শিরোনামে জারি করা ওই নোটিশে বলা হয়, এতদ্বারা জানানো যাচ্ছে যে, ১৪নং জাহানপুর ইউনিয়নের সকল সেলুন দেকান মালিক ও কারিগরদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি যে, সুন্নতি কাটিং, ডিফেন্স/আর্মি কাটিং ব্যতীত অন্য কোনো কাটিং দেওয়া হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিজের সিল স্বাক্ষর ব্যবহার করে ওই নোটিশ জারি করেন চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন হাওলাদর। নোটিশ জারির পর সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনার ঝড় শুরু হলে বুধবার বিকালে চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন হাওলাদার নোটিশের জন্য দুঃখ প্রকাশ করে নিজ ফেসবুক আইডিতে লিখেছেন- সেলুনে যে নোটিশ দিয়েছি তা আইনি প্রক্রিয়ার বহির্ভূত হয়েছে। আমি ক্ষমাপ্রার্থী। কিছু মুরব্বির কথায় দিয়েছিলাম। তুলে নিয়েছি নোটিশটি।

গত সোমবার নোটিশ জারি হলেও পরদিন মঙ্গলবার রাত থেকে নোটিশটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়াতে শুরু করে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক সমালোচার মুখে কাল বুধবার বিকালে চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন হাওলাদার নোটিশ জারির জন্য দুঃখ প্রকাশ করে নোটিশটি প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে নিজ আইডিতে স্ট্যাটাস দেন।

কিন্তু মঙ্গলবার বিকালে নোটিশ সম্পর্কে জানতে চাইলে চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন হাওলাদার জানান, তার সিল স্বাক্ষর জাল করে কে বা কারা এই নোটিশ জারি করেছেন তিনি জানেন না।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আল নোমান জানান, এমন নোটিশ জারির এখতিয়ার তার নেই। তিনি জনগণের ব্যক্তি স্বাধীনতা খর্ব করেছেন।

বিজ্ঞাপন

এ জাতীয় আরো খবর