1. [email protected] : admi2017 :
  2. [email protected] : Daily Khabor : Daily Khabor
  3. [email protected] : shaker :
  4. [email protected] : shamim :
রবিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:৪৯ অপরাহ্ন

জিগাতলার ৬৭/২ বাড়িটি ঝুকিপূর্ণ,ঘটতে পারে ভয়াবহ দূর্ঘটনা

ডেইলি খবর নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১৩ জানুয়ারি, ২০২২
  • ২১ বার পড়া হয়েছে

নিউজ: জিগাতলার ৬৭/২ বাড়িটি ঝুকিপূর্ণ। যে কোনো সময়ে ঘটতে পারে ভয়াবহ দূর্ঘটনা। ঘটতে পারে হতাহতের ঘটনা। স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। এরআগে এ বাড়িতে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) থেকে ঝুকিতে থাকা ভবনটিতে লাল নোটিশ টাঙ্গিয়ে দিলেও তা রাতের অন্ধকারে বাড়ির মালিকানায় থাকা একজন নোটিশটি সরিয়ে ফেলে। তাতে বাড়ি ভাড়ার নোটিশ দিয়ে ঝুকিপূর্ণর তথ্য গোপন করে বাড়াটিয়া খুজে বাড়া দিয়েছে। স্থানীয় সুত্রগুলো জানায় রাজধানীর জিগাতলায় এই ঝুকিপূর্ণ ভবনে নি¤œমধ্যবিক্তদের বসবাস। যে কোনো সময় এভবনটি ধ্বসে পড়লে গঠতে পারে বহু হতাহতের ঘটনা। জোড়াতালি দিয়ে রক্ষনাবেক্ষনের চেষ্টা করা হলেও ভেতরে নোংরা স্যাথ-শ্যথে পরিবেশ। কিছু বেসরকারী প্রতিষ্ঠান ভাড়া থাকলেও তারা বিষয়টি যাচাই করার সুত্র পাচ্ছে না। ভবনটি চারতলা হলেও এরচারশে পলিস্তার খশে পরেছে। জিগাতলার এই বাড়ির ঠিকানা বাড়ি নং-৬৭/২, থানা-হাজারীবাগ, ঢাকা-১২০৯। এই ঠিকানার বাড়িটি বহু আগেই পরিত্যাক্ত বলে এলাকায় চাউর আছে। পৈত্রিকসুত্রে পাওয়া বাড়ির একাধিক মালিকানার মধ্যে মো: সিদ্দিউকুর রহমান খান, পিতা-মরহুম নুর হোসেনসহ মালিকানার সবাই তথ্য গোপন করে ভাড়া দিচ্ছেন,যার কাছে যা পাচ্ছেন তাই-ই ভাড়া নিচ্ছেন। বিষয়টি বাড়াটিয়ারা না জেনে ভাড়া নিচ্ছেন। রাজউক সুত্র জানায় বাড়িটি ভেঙ্গে নতুন ভবন তৈরীর জন্য রাজধানী উন্নয়ন কর্তপক্ষ-রাজউকের কাছে দৌড়ঝাপ করেও কোনে কাজ হয়নি। জানা গেছে ভবনটির অতীত-বর্তমান অবস্থার সার্বিক তথ্য গোপন করে প্ল্যানের আবেদন করে। বিষয়টি রাজউক জানতে পেরে বাড়িটি কালো তালিকাভুক্ত করে রেখেছে। স্থানীয়দের দাবি বাড়িতে বসবাসকারী ও আশপাশের নিরাপওার স্বার্থে বিষয়টি জরুরী ভিক্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের দৃস্টি আর্কষন করেছেন স্থানীয়রা। বাড়িটি যেহেতু ঝুকিপূর্ণ বলে প্রচারিত তাই পরবর্তীকার্যক্রম দ্রæত হাতে না নিলে যে কোন সময় ঘটতে পারে বহু জীবনের হতাহতের ঘটনা। বিষয়টি নিয়ে বাড়িয়ালার সাথে কথা বলতে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও কথা বলতে রাজি হয়নি।

 

বিজ্ঞাপন

এ জাতীয় আরো খবর