1. [email protected] : admi2017 :
  2. [email protected] : Daily Khabor : Daily Khabor
  3. [email protected] : shaker :
  4. [email protected] : shamim :
বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৪:৫৯ অপরাহ্ন

ডোপ টেস্টের নমুনামূত্রে পানি মিশিয়ে ধরা খেলেন

ডেইলি খবর নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় সোমবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১২২ বার পড়া হয়েছে

ভারতে দক্ষিণী অভিনেত্রী রাগিনী দ্বিবেদীর বিরুদ্ধে মাদক পাচার চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ আগেই উঠেছিল। এবার নিজের ডোপ টেস্টের নমুনা বিকৃত করার অভিযোগও উঠলো এ অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে।

বেঙ্গালুরু পুলিশের সেন্ট্রাল ক্রাইম ব্রাঞ্চ (সিসিবি) এ নিয়ে আনুষ্ঠানিক কিছু না বললেও পুলিশ সূত্রের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, নিজের মূত্রের নমুনায় পানি মিশিয়েছিলেন কন্নড় অভিনেত্রী রাগিনী।

জানা যায়, সিসিবি-র হেফাজতে থাকাকালীন রাগিনীর ডোপ টেস্ট করা হয়েছে। তবে শহরের কে জি হাসপাতালে প্রথম বারের ডোপ টেস্টের সময় নিজের মূত্রের নমুনায় পানি মিশিয়ে দেন অভিনেত্রী, যাতে ডোপ টেস্টের ফলাফলে হেরফের ঘটানো যায়।

সংবাদ সূত্রের আরও দাবি, ডোপ টেস্টের নমুনা যে বিকৃত করা হয়েছে, তা সহজেই ধরে ফেলেন চিকিৎসকরা। এর পর রাগিনীর দ্বিতীয়বার ডোপ টেস্ট করানো হয়। রাগিনী যাতে ওই নমুনা বিকৃত না করতে পারেন, সে দিকেও লক্ষ্য রাখেন তদন্তকারীরা। পুলিশের ওই সূত্রের কথায়, মূত্রের নমুনা যে বিকৃত করা হয়েছে, তা সঙ্গে সঙ্গেই ধরে ফেলেন চিকিৎসকেরা। তাতে পানি মেশানো ছিল। এরপর রাগিনীকে আরও একবার মূত্রের নমুনা দিতে বলা হয়।

চলতি মাসের গোড়ায় কন্নড় অভিনেত্রী রাগিনীকে মাদক পাচার চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার করে সিসিবি। ওই মামলায় আর এক অভিযুক্ত রবি শঙ্করকে জেরা করায় উঠে আসে রাগিনীর নাম। ৩ সেপ্টেম্বর তলব করলেও সিসিবি-র কাছে হাজিরা দেননি রবির ঘনিষ্ঠ বন্ধু রাগিনী। উল্টে নিজেকে নির্দোষ আখ্যা দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পুলিশের সঙ্গে সহযোগিতার কথাও বলেন তিনি।

তার পরের দিনেই রাগিনীর বাড়িতে তল্লাশি অভিযান চালায় পুলিশ। সেখান থেকে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সামগ্রী বাজেয়াপ্ত করেন তদন্তকারীরা। সেদিনেই রাগিনীকে গ্রেফতার করে নিজেদের হেফাজতে নেয় সিসিবি। রাগিনী ছাড়া এই মামলায় সঞ্জনা গলরানি নামে আরও এক কন্নড় অভিনেতা-সহ মোট ১৩ জনকে গ্রেফতার করেছেন তদন্তকারীরা।

তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, ডোপ টেস্ট ছাড়াও রাগিনী ও সঞ্জনার চুলের কোষের নমুনা সংগ্রহ করেছেন তারা। তা হায়দরাবাদের ল্যাবরেটরিতে পাঠানো হবে। জানা যায়, গত চার-পাঁচ মাসে মাদক সেবন করা হলে, তার প্রমাণ মিলতে পারে ওই টেস্টের মাধ্যমে।

বিজ্ঞাপন

এ জাতীয় আরো খবর