1. [email protected] : admi2017 :
  2. [email protected] : Daily Khabor : Daily Khabor
  3. [email protected] : shaker :
  4. [email protected] : shamim :
বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ০১:৩৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টানা দ্বিতীয় জয় ,৫ উইকেট বাংলাদেশের চিত্রনায়িকা পরীমনি আটক, বিপুল পরিমাণ মাদক জব্দ বনানীর পরীমনির ফ্ল্যাটে ঢুকে তাজ্জব র‌্যাব,বাসা নয় যেন ‘মদের বার’ মধ্যরাতে মদারু স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার মাতলামি র‌্যাবের অভিযানে বিপুল পরিমান বিদেশী মদসহ পরীমনি ‘আটক’ বিয়ে করেছেন ১১টা, বিপুল টাকা হাতিয়েছেন মৌ সাবেক স্বামীদের থেকে সাংবাদিকতার নামে কী হচ্ছে, দেখেন না: দুদক আইনজীবীকে হাইকোর্ট বাবুলের ‘প্রেমিকা’ গায়ত্রীর গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে ইউএনএইচসিআর কথিত মডেলদের নাইট পার্টিতে ধনীর দুলালরা টিকা ছাড়া বাইরে বের হলে শাস্তির খবর সঠিক নয় : স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

লকডাউন শিথিল করছে অস্ট্রেলিয়া

ডেইলি খবর নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় বুধবার, ২৯ এপ্রিল, ২০২০
  • ৫৪ বার পড়া হয়েছে

লকডাউন শিথিল করছে অস্ট্রেলিয়া। বেশ কিছু অঙ্গরাজ্যে কড়াকড়ি তুলে নেওয়া হচ্ছে। এমনকি ইতোমধ্যেই দেশটির বিভিন্ন জনপ্রিয় বীচ আবারও খুলে দেওয়া হয়েছে।

দেশজুড়ে ব্যাপকহারে করোনার পরীক্ষা করা হচ্ছে। আশা করা হচ্ছে আস্তে আস্তে করোনার প্রকোপ আরও কমতে শুরু করবে। ইতোমধ্যেই সিডনির বন্ডি বীচ এবং কাছাকাছি আরও দু’টি বীচ খুলে দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার থেকেই সেখানে আগের মতো যেতে পারবেন স্থানীয় বাসিন্দারা। প্রায় এক মাস ধরে এই বীচগুলো বন্ধ রেখেছিল স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। লোকজন সামাজিক দূরত্ব না মেনে বীচে একত্রিত হচ্ছিল বলেই এমন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছিল।

নিউ সাউথ ওয়েলস অঙ্গরাজ্য থেকে কড়াকড়ি তুলে নেওয়া হচ্ছে। প্রতিবেশীদের বাড়িতে যাওয়া আসার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে। দু’জন প্রাপ্ত বয়স্ক ব্যক্তি চাইলে তাদের প্রতিবেশীদের বাড়িতে যেতে পারবে।

আগামী শুক্রবার থেকেই এই নিয়ম কার্যকর হবে। একই সঙ্গে বাড়িতে থাকা এবং অপ্রয়োজনীয় চলাফেরার ওপর যে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছিল তাও শিথিল করা হয়েছে।

নিউ সাউথ ওয়েলস কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, অনেক লোকজনই ইতোমধ্যেই বাড়িতে থাকতে অভ্যস্ত হয়ে গেছে। তারা শুধুমাত্র শরীরচর্চা, ওষুধ বা দরকারি জিনিসপত্র কিনতে বাইরে বের হচ্ছে। অনেকেই বাড়িতেই সেলফ আইসোলেশনে আছে।

লোকজনকে আশেপাশের বাড়িতে যাওয়া আসার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। তবে দু’জনের বেশি লোকজন আশেপাশের বাড়িতে যেতে পারবে না। এছাড়া বড়রা তাদের সঙ্গে ছোট বাচ্চাদের নিয়ে্ও বের হতে পারবে।

তবে যারা শারীরিকভাবে দুর্বল বা অসুস্থ তাদের বাড়িতেই থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। করোনার প্রাদুর্ভাব শুরুর পর থেকেই সব ধরনের সীমান্ত বন্ধ করে রেখেছে অস্ট্রেলিয়া।

একই সঙ্গে ব্যবসা-বাণিজ্য বন্ধ রাখা হয়েছিল এবং সামাজিক দূরত্ব কঠোরভাবে মেনে চলা হচ্ছিল। কিন্তু স্থানীয় লোকজনের মধ্যে সংক্রমণের হার কমতে শুরু করায় কড়াকড়ি কিছুটা শিথিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য।

সূত্র : জাগো নিউজ

বিজ্ঞাপন

এ জাতীয় আরো খবর

বিজ্ঞাপন