1. [email protected] : admi2017 :
  2. [email protected] : Daily Khabor : Daily Khabor
  3. [email protected] : shaker :
  4. [email protected] : shamim :
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ০৮:২০ পূর্বাহ্ন

সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেলের ছেলের বিরুদ্ধে স্ত্রীর মামলা (ভিডিও)

ডেইলি খবর নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় রবিবার, ২০ জুন, ২০২১
  • ১৮ বার পড়া হয়েছে

স্ত্রী নির্যাতন, ভ্রুণ হত্যা ও দুই বছরের সন্তানকে আটকে রাখার অভিযোগে সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এএফ হাসান আরিফের ছেলে মোয়াজ আরিফের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

গত বুধবার রাজধানীর নিউমার্কেট থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলাটি করেন মোয়াজের স্ত্রী নিলা।

তবে সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন মোয়াজের বাবা হাসান আরিফ। তার পরিবারের দাবি, নিলা স্বামীর সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। আগের বিয়ের তথ্য গোপন করে মোয়াজকে বিয়ে করেছেন। এটি তার চতুর্থ বিয়ে। তাকে ডিভোর্স দেওয়া হয়েছে।

নিলার অভিযোগ, প্রায় চার বছর আগে হাসান আরিফের ছেলে মোয়াজের সঙ্গে বিয়ে হয় তার। স্বামী তার নিঃসন্তান বোনকে নিজের কন্যাসন্তান দিয়ে দিতে চাইলে বাধা দেন তিনি। এ ঘটনায় নিউমার্কেট থানায় জিডি করেছিলেন তিনি। দ্বিতীয় সন্তান পেটে এলেও তাকে নির্যাতন করে মেরে ফেলা হয় বলে অভিযোগ নিলার।

যমুনা টেলিভিশনকে নিলা আরও বলেন, আমার সিস্টার ইন ল’ (মোয়াজের বোন) এর সন্তান হয় না। ওর বিয়ে হয়েছে ১১ বছর। মোয়াজের বোন আমার ২ বছরের সন্তান মাইরিনকে কানাডায় নিয়ে যেতে চায়।

‘তারপর আমি কনসিভ করলাম। ওই বাচ্চাটাও তিন মাস পেটে থাকা অবস্থায় লাথি মারা হলে বাচ্চাটা নষ্ট হয়ে যায়।’

নিলার অভিযোগ, তৃতীয় সন্তান পেটে আসার পরও আবার নির্যাতন করলে নিলা বাধা দেন। এরপর নিলার বিরুদ্ধে মামলা হয়। স্বামীকে হত্যাচেষ্টার মামলায় ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় ১ মাস ৭ দিন জেল খাটেন তিনি। কারাবন্দি অবস্থায় সন্তান ভূমিষ্ঠ হয় তার। গত ৮ জুন মুক্তি পেয়ে ২ বছরের প্রথম সন্তানকে দেখতে চাইলেও পারেননি। ১২ দিনের নবজাতক নিয়ে তিনি এখন দিশেহারা।

নিলা বলেন, আমার সঙ্গে এই বাচ্চা অ্যাবর্সন (গর্ভপাত) নিয়ে অনেক ঝগড়া হয়। ও আমাকে (মোয়াজ) এলোপাতাড়ি মারধর করত। আমার গর্ভপাত হতে পারে, বাচ্চাটা মরে যেতে পারে বা আমার কোনো বড় অ্যাক্সিডেন্ট হয়ে যেতে পারে বিধায় আমি হাতে ছুরি নিয়ে ওকে ভয় দেখাই, যাতে ও কাছে না আসে।

তিনি আরও বলেন, ৬ জুন আমার বেবি হয়, ৭ তারিখ আমার জামিন হয়। ৮ তারিখ হসপিটাল আমাকে রিলিজ করে দেয়। ৮ তারিখ থেকে এ পর্যন্ত আমি শ্বশুরের বাসায় প্রবেশের চেষ্টা করেছি। কিন্তু আমাকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। এখন ওরা যে কোনো শর্ত দিক আমি রাজি। কিন্তু আমার বাচ্চারা যেন ভালো থাকে।

নির্যাতন ও দুই বছরের সন্তানকে আটকে রাখার অভিযোগে গত বুধবার স্বামী মোয়াজ আরিফের বিরুদ্ধে নিউমার্কেট থানায় মামলা করেন নিলা।

এ বিষয়ে রমনা জোনের ডিসি সাজ্জাদুর রহমান বলেন, ঘটনার সত্যতা সাপেক্ষে আসামি আইন আমলে আসবে। এবং যা যা ব্যবস্থা নেয়া দরকার, সব নেওয়া হবে।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে মোবাইলে সাড়া দেননি নিলার স্বামী মোয়াজ আরিফ। তবে তার শ্বশুর হাসান আরিফ তার মুখপাত্র অ্যাডভোকেট আব্দুল্লাহ আল নোমানের মাধ্যমে জানান, নিলার প্রতিটি অভিযোগ মিথ্যা।

নোমান বলেন, ২৯ তারিখ বিকালে আমরা নিলাকে ডিভোর্স দিয়ে দিয়েছি। নিলার এটা চার নম্বর বিয়ে। এ নিয়ে আমাদের কোনো আপত্তি নেই। উনি কিন্তু প্রথম ঘরে একটি বাচ্চা রেখে এসেছেন। দ্বিতীয় ঘরে বাচ্চাটা নিয়ে এসে একটি শিশুপল্লীতে দিয়ে দিয়েছেন। এ বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়ে শিগগিরই সংবাদ সম্মেলন করবেন বলে জানান তিনি।

ভিডিওটি দেখতে ক্লিক করুন…

বিজ্ঞাপন

এ জাতীয় আরো খবর

বিজ্ঞাপন