1. [email protected] : admi2017 :
  2. [email protected] : Daily Khabor : Daily Khabor
  3. [email protected] : shaker :
  4. [email protected] : shamim :
বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০১:৫৮ পূর্বাহ্ন

সিগন্যাল বুস্টার দিয়েও মিলছে না মোবাইল নেটওয়ার্ক

ডেইলি খবর নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় বুধবার, ১ জুন, ২০২২
  • ১৫ বার পড়া হয়েছে

চরফ্যাশন ও মনপুরা উপজেলার চার ইউনিয়নের বেশিরভাগ চরে নেই মোবাইল টাওয়ার। এ কারণে সিগন্যাল বুস্টার ব্যবহার করেও মোবাইল নেটওয়ার্ক সেবা পাওয়া যাচ্ছে না চরফ্যাশনের পয়ষ্টীরচর, আশিরচর, তীলচর, শিবচর, লালচর, বয়ারচর, রাস্তারচর, রানিরচর, পাঙ্গাশিয়ারচর।

মনপুরা উপজেলার কলাতলী, চরডেম্পিয়া (ঢালচর) ও কাজীরচরে কৃষি, গবাদিপশু ও মৎস্যসম্পদে ভরপুর। এসব চরে নেটওয়ার্ক না থাকায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন খামারি, আড়তদার, জেলেসহ ব্যবসায়ীরা।

সরেজমিন দেখা যায়, চরফ্যাশনের ঢালচর, চরকুকরিমুকরি ইউনিয়ন ও মনপুরা উপজেলার মনপুরা ইউনিয়নের কলাতলীচর, ঢালচর ও কাজীরচরের চারপাশে মেঘনা নদী। কাজীরচরের পাশেই হাতিয়ার অংশ। এসব চরে ৪০-৫০ হাজার মানুষের বাস। সেখানে ২০টি মাছের ঘাট, বাজার, পুলিশ তদন্তকেন্দ্র, বিদ্যালয়, স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও কয়েকটি বেসরকারি সংস্থা রয়েছে।

এসব চরে প্রতিদিন কয়েক কোটি টাকার লেনদেন হলেও কোনো মোবাইল টাওয়ার নেই। পুলিশ তদন্তকেন্দ্র, ব্যবসায়ী, বেসরকারি সংস্থা ও মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবসায়ীরা মোবাইলের সিগন্যাল বুস্টার ব্যবহার করেও সঠিক সেবা পাচ্ছেন না। কোনো রকমে কাজ চালাচ্ছেন। নেটওয়ার্ক যায় আর আসে। একাধিকবার চেষ্টা করে তাদের কাজ চালাতে হচ্ছে।

কলাতলীচরের মনিরবাজারের ওষুধ ও মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবসায়ী আল আমিন বলেন, সিগন্যাল বুস্টার ব্যবহার করে দিনে এক বা আধাঘণ্টা নেটওয়ার্ক পাওয়া যায়। একটি বুস্টারের দাম ১৫-১৬ হাজার টাকা। কিন্তু এর পরও সমস্যার সমাধান হচ্ছে না।

কলাতলী পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের এসআই বলেন, অফিসের ভেতরে একটি সিগন্যাল বুস্টার বসানো আছে। সেটির সঙ্গে লাগানো মোবাইলে কথা বলা যায়। তাও নেটওয়ার্ক যায় আর আসে। ল্যান্ডফোনের মতো বুস্টারের নিচ থেকে চলে গেলে আর সংযোগ পাওয়া যায় না। এখানে একটি মোবাইল টাওয়ার বসানো দরকার।

কলাতলীর কবিরবাজার মাছের ঘাটের মৎস্য ব্যবসায়ী মো. কামাল হোসেন বলেন, জেলেরা প্রতিনিয়ত জলদস্যুর কবলে পড়ছেন। নেটওয়ার্ক না থাকায় চরের বাসিন্দা ও জেলেরা বিপদে পড়লেও তাৎক্ষণিকভাবে মোবাইলে কাউকে জানাতে পারেন না। ঢাকাসহ মাছ বিক্রির মোকামগুলোতে সেভাবে যোগাযোগ করা যায় না। এতে ব্যবসায়ীদের ক্ষতি হচ্ছে।

চরফ্যাশন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল নোমান বলেন, এই আধুনিক যুগে মোবাইলের নেটওয়ার্ক না থাকায় সাগর মোহনায় মাছ ধরতে আসা জেলেরা তাদের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন না। ব্যবসায়ীরাও খুব সমস্যার মধ্যে আছেন।

বিজ্ঞাপন

এ জাতীয় আরো খবর